ইউরোপা লিগে হার দিয়ে অভিষেক রোনালদোর

144

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ওল্ড ট্রাফোর্ডে কাল রাতে মাঠে নামার আগে কখনো ইউরোপা লিগে খেলা হয়নি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর। ইউরোপে দ্বিতীয় স্তরের এই প্রতিযোগিতার পূর্ববর্তী সংস্করণে খেলেছেন, ২০০২ সালে উয়েফা কাপে। তখন ফরম্যাটও ছিল আলাদা।

প্রথম রাউন্ডে সার্বিয়ান ক্লাব পার্টিজানের কাছে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-৪ গোলের হারে বিদায় নিতে হয়েছিল রোনালদোর ক্লাব স্পোর্টিং সিপিকে। এর মধ্যে প্রথম লেগে হেরেছিল স্পোর্টিং, যে ম্যাচে রোনালদোর অভিষেক হয়েছিল উয়েফা কাপে।

সেই প্রতিযোগিতারই (২০০৯ থেকে শুরু) বর্তমান সংস্করণ ইউরোপা লিগে কাল রাতে রোনালদোর অভিষেক হলো হার দিয়ে। ঠিক ধরেছেন। ইউরোপা লিগে হার দিয়ে শুরু করেছে রোনালদোর দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

‘ই’ গ্রুপ থেকে রিয়াল সোসিয়েদাদের কাছে ১-০ গোলের হারে ইউরোপা লিগ অভিযান শুরু করেছে এরিক টেন হাগের দল। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় ইংলিশ ক্লাবের বিপক্ষে সাতবারের চেষ্টায় এটাই প্রথম জয় সোসিয়েদাদের। ৫৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্রেইস মেন্দেজের গোলে এগিয়ে যায় সোসিয়েদাদ। পরে এই গোলকে পুঁজি করেই জয় তুলে নেয় স্প্যানিশ ক্লাবটি।

ম্যাচ শুরুর আগে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জানাতে মাঠে এক মিনিট নীরবতা পালন করে দুই দল। হাতে কালো আর্মব্যান্ড বেঁধে নেমেছিলেন খেলোয়াড়রা।

দিয়াগো দালতের ক্রস থেকে ৩৬ মিনিটে হেডে গোলও করেছিলেন রোনালদো, কিন্তু অফ সাইডের কারণে গোলটি বাতিল করা হয়। গোলশূন্য থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে দুই দল।

বিরতির পর ব্রুনো ফার্নান্দেজ ও লিসান্দ্রো মার্তিনেজকে মাঠে নামান টেন হাগ। সোসিয়েদাদ ম্যাচের প্রায় এক ঘণ্টার মাথায় বিতর্কিত পেনাল্টিতে এগিয়ে যায়। ৫৯ মিনিটে ডেভিড সিলভার শট ইউনাইটেড ডিফেন্ডার মার্তিনেজের হাঁটুতে লেগে হাতে লাগে। ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) প্রযুক্তি মাঠের রেফারির পেনাল্টির সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন এবং স্পটকিক থেকে গোল করেন মেন্দেজ। গোল পেতে মরিয়া টেন হাগ ৭০ মিনিটে আন্তনিকে তুলে জেডন সানচোকে মাঠে নামান। কিন্তু গোল আর পায়নি ইউনাইটেড।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.