‘নেইমারের সাথে এমবাপের সম্পর্ক খুবই ভালো’

145

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

সময়ের সেরা ফুটবলারদের তালিকা করতে গেলে প্রথম সারিতেই জায়গা পাবেন ব্রাজিলিয়ান নেইমার ও ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী তারকা কাইলিয়ান এমবাপে। একই ক্লাব পিএসজির হয়ে খেলা তারকাযুগলের মাঠের রসায়ন বেশ ভালো। তবে গত কয়েকদিনে ধরে দুজনের বিবাদ নিয়ে বেশকিছু সংবাদ এসেছে গণমাধ্যমে। সেসব সংবাদকে এবার উড়িয়ে দিলেন ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নদের কোচ ক্রিস্টোফে গালতিয়ের।

ফ্রেঞ্চ কোচের মতে, এই দুই ফরোয়ার্ডের মধ্যে সম্পর্ক খুব ভালো। দুজনের সম্পর্ক ভবিষ্যতে আরও ভালো হবে বলেও বিশ্বাস কোচের। শনিবার প্রেস কনফারেন্সে এ কথা জানিয়েছেন ৫৬ বর্ষী কোচ।

‘নেইমার ও কাইলিয়ানের মধ্যে সম্পর্ক খুব ভালো। তারা অনুশীলনে একসঙ্গে থাকে, ওয়ার্ম-আপের সময়ও তারা প্রায়ই একসঙ্গে থাকে। হ্যাঁ, জুভেন্টাসের ম্যাচে একটি পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল এবং আমি গতকাল কাইলিয়ানের সাথে এটা নিয়ে আলোচনা করেছি। আমার মনে হয় এই ব্যাপারে সে নেইমারে সাথেও কথা বলেছে৷’

‘আমার বিশ্বাস, কাইলিয়ান আগামীতে নেইমারকে আরও দারুণ সব পাস দেবে, কারণ নেইমার একইরকম নিশ্চিত গোলের সুযোগ এমবাপেকে করে দিতে সক্ষম। তবে ওই ম্যাচে সুযোগ নষ্ট করা নিয়ে আমি তাদের মধ্যে নেতিবাচক কিছু অনুভব করিনি।’

নেইমার ও এমবাপের মধ্যে কথিত ঝামেলার শুরু গ্রীষ্মের দলবদল থেকে। অনেক নাটকীয়তার পর পিএসজিতে নতুন চুক্তি করার পর দলে নাকি এমবাপের ক্ষমতা বেড়ে গেছে অনেক।

নেইমারকে বিক্রি করে দেওয়ার প্রস্তাবও নাকি ক্লাবকে দিয়েছিলেন ফরাসি ফরোয়ার্ড, এমন কথাও শোনা যায়। বিষয়টি নেইমারের কানে যাওয়ার পর থেকেই দুজনের মধ্যে ঝামেলার শুরু বলে গণমাধ্যমের খবর।

দুই তারকার দ্বন্দ্বের বিষয়টি সম্প্রতি আরও সামনে আসে আরও দুটি ইস্যুর কারণে। লিগ ওয়ানে গত ১৩ অগাস্ট মন্টপেলিয়ের বিপক্ষে ম্যাচে জোড়া গোল করেন নেইমার। শুরুতে পেনাল্টি মিস করলেও পরে জালের দেখা পান এমবাপেও। নেইমার তার দুই গোলের একটি করেন পেনাল্টি থেকে। এমবাপে প্রথম পেনাল্টি মিস করার পর দ্বিতীয়টি নেন নেইমার। কিন্তু ওই পেনাল্টিও নাকি এমবাপে নিতে চেয়েছিলেন। ওই মুহূর্তে দুজনের কথোপকথনের নানা ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়। ব্রাজিলিয়ান তারকা স্পট কিক থেকে গোল করার পর উদযাপনও করেননি এমবাপে।

মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ম্যাচে পিএসজির ২-১ গোলের জয়ের ম্যাচে জোড়া গোল করেন এমবাপে। দল ২-০ গোলে এগিয়ে থাকা অবস্থায় ৫১তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণের সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি এমবাপে। ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে দুরূহ কোণ থেকে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি তিনি। ওই সময় পাশে ফাঁকা জায়গায় ছিলেন নেইমার। পাস না পেয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.