বাংলাদেশকে ৫ উইকেটে হারিয়ে টি-২০ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে পাকিস্তান

73

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বাংলাদেশকে সহজেই ৫ উইকেটে হারিয়ে টি-২০ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে পৌঁছে গেল পাকিস্তান। সুপার ১২ গ্রুপ ২-তে ৫ ম্যাচ খেলে পাকিস্তানের পয়েন্ট হল ৬। এদিন দক্ষিণ আফ্রিকা নেদারল্যান্ডসের কাছে হেরে যাওয়ায় বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচে যে দল জিতবে তাদেরই সেমি ফাইনালে যাওয়া নিশ্চিত হয়ে যায়। সেই ম্যাচে সহজ জয় পেল বাবর আজমের দল। প্রথমে ভারত, তারপর জিম্বাবোয়ের কাছে হারের পর পাকিস্তানের সেমি ফাইনালে যাওয়া অত্যন্ত কঠিন হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেই অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে নেদারল্যান্ডস, দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশকে হারিয়ে শেষ চারে পৌঁছে গেল পাকিস্তান। বাবররা গ্রুপে দ্বিতীয় হলে বুধবার প্রথম সেমি ফাইনালে সুপার ১২ গ্রুপ ১-এর শীর্ষে থাকা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলবেন। ভারতীয় দল সেক্ষেত্রে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমি ফাইনালে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে। তবে পাকিস্তান যদি কোনওভাবে গ্রুপের শীর্ষে থাকে, তাহলে সেমি ফাইনালে ভারত-নিউজিল্যান্ড এবং পাকিস্তান-ইংল্যান্ড লড়াই দেখা যাবে। ভারত ও পাকিস্তান যদি সেমি ফাইনাল ম্যাচ জিতে যায়, তাহলে আগামী রবিবার টি-২০ বিশ্বকাপ ফাইনালে মহারণ। সুপার ১২ গ্রুপ ২-এর প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়েছে ভারত। ফাইনালে এই দুই দল ফের মুখোমুখি হলে জমজমাট লড়াইয়ের প্রত্যাশায় থাকবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

এই ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশের অধিনায়ক শাকিব আল-হাসান। কিন্তু পাকিস্তানের পেস আক্রমণের সামনে সুবিধা করতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত ছাড়া আর কোনও ব্যাটারই বড় রান করতে পারেননি। শান্ত করেন ৫৪ রান। ভারতের বিরুদ্ধে ঝোড়ো ব্যাটিং করা লিটন দাস এদিন একটিমাত্র ছক্কা মেরে ১০ রান করেই আউট হয়ে যান। সৌম্য সরকার কিছুটা লড়াই করেন। তিনি ২০ রান করে আউট হন। শাকিব প্রথম বলেই এলবিডব্লু হয়ে যান। তাঁর আউটের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আফিফ হোসেন ২৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। পাকিস্তানের হয়ে ২২ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। ৩০ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন শাদাব খান। বাংলাদেশ ৮ উইকেটে ১২৭ রান করে।

১২৮ রানের টার্গেট টি-২০ ম্যাচে মোটেই বড় কিছু নয়। কিন্তু শেষদিকে পরপর উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। যদিও তারাই শেষপর্যন্ত জয় পেল। পাক অধিনায়ক বাবর আজম করেন ২৫ রান। অপর ওপেনার মহম্মদ রিজওয়ান করেন ৩২ রান। মহম্মদ হ্যারিস ৩১ ও শান মাসুদ অপরাজিত ২৪ রান করেন। ১৮.১ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় পাকিস্তান।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.