বিশ্বকাপের জন্য নতুন চুলের কাটিং দিলেন নেইমার

54

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

শুধু পায়ের সুনিপুন কারিকুরি, দুর্দান্ত ড্রিবলিং আর গোল দেওয়ার জন্য ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার জুনিয়র সুপরিচিত নন। সাজসজ্জার জন্যও বেশ আলোচিত তিনি। সান্তোসের সেই ১৪-১৫ বছরের নেইমারকে কিংবদন্তি পেলের সঙ্গে তুলনা টানা হয়েছিল। তিনিও ‘নতুন পেলে’ তুলনায় গা ভাসিয়ে ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তির মতো মাথার মাঝখান দিয়ে চুল রেখে সাজ দিয়েছিলেন।

এরপর নেইমার যে কতভাবে নিজেকে সাজিয়েছেন তার হিসাব নেই। কখনও তিনি চুল বাদামি করেছেন, কখনও লাল। কখনও ট্যাটু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোড়ন ফেলেছেন এই তারকা। বিয়ে-প্রেম, ডাইভ এসব তো আছেই। এর মধ্যে রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রায় প্রতি ম্যাচেই নতুন নতুন সাজে মাঠে নেমেছিলেন পিএসজির এই ব্রাজিলিয়ান তারকা। যদিও দাবি করা হয়, ইনজুরি থেকে প্রতিপক্ষের মনোযোগ সরাতেই ওই বুদ্ধি করেছিলেন তিনি।

আরেকটি বিশ্বকাপ আসন্ন। আর নেইমার নতুন কোন সাজে মাঠে আসবেন না, তা কি হয়! পিএসজি তারকা তাই নতুন ‘মেকআপ’ নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছেন। সংবাদ মাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, নেইমার সৌন্দর্য বর্ধনের চিকিৎসা শুরু করে দিয়েছেন। নিচ্ছেন চর্ম চিকিৎসা।

চর্ম বিশেষজ্ঞ জুলিয়ান নেইভা বলেছেন, ‘আমরা তার জন্য এক বছরের একটা চিকিৎসা পরিকল্পনা নিয়েছিলাম। বিশ্বকাপের জন্য এখন সেটা আরও জোরদার করা হয়েছে। এর উদ্দেশ্য হলো তার তর্কের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো এবং আগের চেয়ে আকর্ষণীয় করে তোলা। এটা আত্মবিশ্বাসও বাড়ায়।’

ছয় বছর ধরে নেইমার চর্ম বিশেষজ্ঞ জুলিয়ানের সঙ্গে কাজ করছেন। ওই চিকিৎসকের মতে, নেইমারের ত্বক খুবই সংবেদনশীল এবং তৈলাক্ত। সেজন্য নেইমার ‘বেবি স্কিন’ ধরে রাখতে নিয়মিত চিকিৎসা নেন। প্রতি চার মাস অন্তত একবার ওই চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হন ব্রাজিলিয়ান তারকা। সৌন্দর্য বর্ধনের কাজটা বিশ্বকাপের আগে আগে একবার সেরে নিচ্ছেন তিনি।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.