মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদের লিগকে ‘কৃষকদের খেলা’ ‘হাস্যকর ও উদ্ভট’ বললেন রিয়াল তারকা

155

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ইউরোপিয়ান ফুটবলে সেরা পাঁচ লিগ শব্দটা খুব বেশি প্রচলিত। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লা লিগা, জার্মান বুন্দেলীগা, ইতালিয়ান সিরি আ এবং ফ্রান্সের লিগ ওয়ানকে একত্রে এই নামে সম্বোধন করা হয়।

বাকি চার লিগেই শিরোপার জন্য তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বীতা হলেও লিগ ওয়ান রয়ে গেছে পুরো এক ঘোড়ার দৌড় হিসেবেই। দর্শকেরা তাই মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদেরল লিগকে বাকি চারটি লিগে সাথে তুলনা করতে নারাজ।

দর্শকদের চোখে লিগ ওয়ানে ঐতিহ্যবাহী কোনো ক্লাব নেই। বরং গত কয়েকবছরেই আরবের পেট্রো ডলার বিনিয়োগ করে সাফল্য কিনে নিয়েছে।

গত এক দশক ধরে লিগ লিগ ওয়ানকে অনেকটাই নিজেদেরই সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছে পিএসজি।স র্বশেষ এক দশকে কেবলমাত্র মোনাকো এবং গত মৌসুমের চমক লিলে কেবলমাত্র পিএসজির আধিপত্য ভেঙে শিরোপা জিততে পেরেছে।

এবার, ফরাসি লীগ ওয়ানকে ধুয়ে দিলেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা টনি ক্রুসও। জার্মানির এই অভিজ্ঞ মিডফিল্ডারের মতে, ফ্রেঞ্চ লীগ হচ্ছে ‘কৃষকদের খেলা’। এই লিগ কিছু প্রতিভার জন্ম দিলেও, এখানে বস্তুত পরিসংখ্যান বাড়ানো ছাড়া আর কিছুই হয় না বলে জানান তিনি। ওএমআর ফডকাস্টে দেওয়া আলাপচারিতায় এসব বলেন ক্রুস।

“ফরাসি লিগ? এটি এডুয়ার্ডো (কামাভিঙ্গা) এবং অরে লিয়ানের (চুয়েমানি) মতো প্রতিভা তৈরি করেছে বটে, প্রতিযোগিতামূলকভাবে এটি একটি হাস্যকর লিগ। আমি বিশ্বাস করি, যদি আমরা আমাদের ক্যাস্টিলা দল পাঠাই, তাহলে তারা জিততে না পারলেও লিগে অন্তত সেরা তিনে থাকবে। সেখানে খেলা কৃষকদের বিরুদ্ধে কিছু স্ট্যাটপ্যাডিং ছাড়া আপনার ক্যারিয়ারে জন্য বেশি কিছু হবে হবে।”

৩২ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার ইংলিশ  প্রিমিয়ার লিগকে ইউরোপীয় ফুটবলের সেরা প্রতিযোগিতা বলে মনে করেন কিনা সে বিষয়েও তার মতামত দিয়েছেন। টনি ক্রুস সেরার তালিকায় লা লিগাও এবং জার্মানির বুন্দেস লিগাকেও পিছিতয়ে রাখেননি।

“আপনি এটা নিশ্চিত হয়ে বলতে পারবেন না। কারণ, অনেক বড় দল আছে, কিন্তু এটা বলা কঠিন। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এ বছর কোনো ইউরোপিয়ান শিরোপা জেতা হয়নি। আমি মনে করি জার্মানি এবং স্পেনের দলগুলো তা ধরে রাখছে।”

বর্তমান সবচেয়ে জনপ্রিয় লিগ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে। ইংল্যান্ডের শীর্ষ লিগে প্রচুর টাকা আসছে বটে। কিন্তু  ক্রুসের মতে, আর্থিক সুবিধা সবসময় খেলোয়াড়দের একটি ক্লাবের প্রতি আকর্ষণ করে না। সেই তুলনায় রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনাও কোন ছোট নাম নয় বলে জানান তিনি।

“টিভি আয় ইংল্যান্ডে বছরের পর বছর ধরে সবচেয়ে বেশি হয়েছে। তবুও ইংলিশ দলগুলি উপকৃত হয়নি এবং এটি একটি ভাল লক্ষণ যে, এখনও ফুটবলাররা ক্লাবের নাম ও ঐতিহ্যের কথা ভাবে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.