স্বপ্নভঙ্গ সেনেগালের মহাতারকা সাদিও মানের! চোটের জন্য ছিটকে গেলেন বিশ্বকাপ থেকে

358

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

মাঝে আর মাত্র কয়েকটা দিন, তারপরেই কাতারে শুরু হতে চলেছে বিশ্বকাপ। এবারের বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়া ৩২টি দেশই শেষমুহূর্তের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত। অধিকাংশ দেশই বিশ্বকাপের জন্য ২৬ জনের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করে দিয়েছে। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, জার্মানি, ক্রোয়েশিয়া, পর্তুগাল, উরুগুয়ে, বেলজিয়াম, ইংল্যান্ড, ক্যামেরুন, ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া, কোস্টারিকা, জাপান, মরক্কো, পোল্যান্ড, সেনেগাল, সার্বিয়া, সুইৎজারল্যান্ড, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ওয়েলশ, সৌদি আরবের স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়ে গিয়েছে। সেনেগালের দল ঘোষণায় বড় চমক দেখা গিয়েছে। কয়েকদিন আগেই জানা গিয়েছিল, বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে বুন্দেশলিগার ম্যাচ খেলতে নেমে মারাত্মক চোট পাওয়ায় স্ট্রাইকার সাদিও মানের পক্ষে বিশ্বকাপে খেলা সম্ভব হবে না। কিন্তু তাঁকে বিশ্বকাপের দলে রাখা হয়েছে। আর্জেন্টিনা দলে রেখেছে এ এস রোমার স্ট্রাইকার পাওলো ডিবালাকে। ৯ অক্টোবরের পর আর কোনও ম্যাচ খেলেননি ডিবালা। তবে আর্জেন্টিনা শিবিরের আশা, বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন এই স্ট্রাইকার। ডেনমার্ক দলে রেখেছে গত ইউরো কাপে মাঠেই হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়া ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনকে। ইংল্যান্ড দলে জায়গা পাননি ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের স্ট্রাইকার জেডন স্যাঞ্চো। ২০১৭ সালে কলকাতায় অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে খেলে গিয়েছেন এই স্ট্রাইকার। তিনি তখন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের হয়ে খেলতেন। পরে জার্মানির এই ক্লাব ছেড়ে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পাড়ি জমান স্যাঞ্চো। সেখানে তাঁর সময়টা ভাল যাচ্ছে না।

এবার মরসুমের মাঝপথে বিশ্বকাপ হচ্ছে। অনেকেই বলছেন, এই কারণেই চোট পাচ্ছেন ফুটবলাররা। এখনও মরসুমের অর্ধেক ম্যাচ বাকি। সেই কারণে ক্লাবগুলিও চিন্তিত। বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নক-আউট পর্ব শুরু হবে। এই পরিস্থিতিতে ফুটবলারদের ফিটনেস নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছে ক্লাবগুলি। চোট পাওয়া মানে সেনেগাল দলে জায়গা পাওয়ায় ক্ষুব্ধ বায়ার্ন। জোর করে যদি এই স্ট্রাইকারকে মাঠে নামানো হয় এবং তাঁর চোট বেড়ে যায়, তাহলে ভুগতে হবে ক্লাবকে। সেই কারণেই মানেকে বিশ্বকাপ দলে রাখার বিষয়টা মানতে পারছে না বায়ার্ন।

গত মঙ্গলবার ওয়ের্ডার ব্রেমেনের বিরুদ্ধে ম্যাচের প্রথমার্ধে চোট পান মানে। এরপর জানা যায়, টেন্ডনের চোট সারাতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। ফলে মানের পক্ষে বিশ্বকাপে খেলা সম্ভব নয়। বায়ার্ন মিউনিখের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে সেনেগাল ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। এই স্ট্রাইকারের চোটের বিষয়ে সরকারিভাবে বিবৃতিও দেয় বায়ার্ন। কিন্তু তারপরেও সেনেগাল মানেকে দলে রাখায় অসন্তুষ্ট।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.