আফগানিস্তানে আটকা পরিবার, ইংল্যান্ডে চিন্তিত রশিদ খান

126

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আফগানিস্তানের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছেন দেশটির জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক রশিদ খান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে গত মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) আফগানিস্তানকে বাঁচাতে বিশ্ব নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি। রোববার ভিন্ন আরেকটি এক শব্দের টুইটবার্তায় শান্তির আহ্বান জানান রশিদ।

তবে তিনি নিজে মোটেও শান্তিতে থাকতে পারছেন না। নিজ দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে চিন্তিত রশিদ। বিশেষ করে আফগানিস্তানে থাকা পরিবারকে সেখান থেকে বের করে আনতে না পারায় স্বস্তি পাচ্ছেন না এ তারকা লেগস্পিনার। তিনি বর্তমানে দ্য হানড্রেড টুর্নামেন্টে অংশ নিতে ইংল্যান্ডে অবস্থান করছেন।

রোববার রাতে তালেবানরা যখন আফগানিস্তানের পূর্ণ দখল নিয়ে নেয়, তখন নটিংহ্যামের মাঠে বল হাতে ঘূর্ণি জাদু দেখাচ্ছিলেন রশিদ। ম্যানচেস্টার অরিজিনালসের বিপক্ষে ম্যাচে নিজের কোটার ২০ বলে মাত্র ১৬ রান খরচায় নিয়েছেন ৩টি উইকেট। যার সুবাদে তার দল ট্রেন্ট রকেটস পেয়েছে দুর্দান্ত এক জয়।

কিন্তু এমন পারফরম্যানসের দিনও খুব একটা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যায়নি রশিদ। একপর্যায়ে ৪০ বলে মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে ৭০ রান করে ফেলেছিল ম্যানচেস্টার। সেখান থেকে পরের পাঁচ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারায় তারা। যার তিনটিই নেন রশিদ। আর অন্যটিতে ক্যাচ ধরেন তিনি। তবু স্বাভাবিক উদযাপন করেননি রশিদ।

যা দেখে স্পষ্টতই বোঝা গেছে, মাঠের বাইরের ঘটনাবলী নিয়ে হয়তো চিন্তিত তিনি। ম্যানচেস্টারের ইনিংস শেষ হওয়ার পর এ বিষয়টি জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও দ্য হানড্রেডের ধারাভাষ্যকার কেভিন পিটারসেন। ম্যাচের প্রথম ইনিংসের সময় বাউন্ডারিতে দাঁড়িয়ে রশিদ সঙ্গে কথা বলেছেন পিটারসেন।

তখন তাদের মধ্যে যা কথা হয়েছে, তা জানিয়েছে ম্যাচের ইনিংস বিরতিতে স্কাই স্পোর্টসের অনুষ্ঠানে পিটারসেন বলেছেন, ‘তার (রশিদ খান) দেশে অনেক কিছুই হচ্ছে। বাউন্ডারিতে দাঁড়িয়ে আমাদের অনেকক্ষণ এ বিষয়ে কথা হয়েছে এবং সে এ বিষয়ে চিন্তিত। সে তার পরিবারকে আফগানিস্তান থেকে বের করে আনতে পারছে না এবং তার ভেতরে অনেক কিছুই চলছে।’

তবে এত কিছুর পরেও মারকাটারি ক্রিকেটে ২০ বলে মাত্র ১৬ রান খরচায় ৩ উইকেট নেয়ায় রশিদ খানের প্রশংসা করতে ভোলেননি পিটারসেন। এমন পরিস্থিতিতেও রশিদ যেভাবে খেলে যাচ্ছে, তা চলতি দ্য হানড্রেড টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা একটি ঘটনা বলে মনে করেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক।

তার ভাষ্য, ‘সে এখন যেই চাপের মধ্যে আছে, সেই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে নিজেকে উজ্জীবিত করা এবং এমন পারফরম্যানস উপহার দেয়, মাঠের বাইরের ঘটনা ভুলে সবকিছু একপাশে রেখে নিজের কাজ সঠিকভাবে করে যাওয়া- আমার মতে এটিই চলতি দ্য হানড্রেড টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা একটি ঘটনা।’

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.