জয়ের পর যা বললেন সাকিব

অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে ৯ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

111

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে ৯ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ে ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করল টাইগাররা।

হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান করে সাকিব আল হাসানের দল। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে তাসকিন আহমেদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১৩৫ রানেই অলআউট হয়ে যায় ডাচরা।

মেঘলা আকাশ ও বৃষ্টির শঙ্কার মধ্যে দিয়েই মাঠে গড়িয়েছে বাংলাদেশ-নেদারল্যান্ড ম্যাচ, যেখানে শেষ হাসি হেসেছে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। দীর্ঘ ১৫ বছর বা ৫৫২০ দিন পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে জয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

সোমবার (২৪ অক্টোবর) ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে সাকিব বলেন, হ্যাঁ, অবশ্যই এই জয়টি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমি সব সংস্করণ খেলেছি, কিন্তু জিততে পারিনি। (জয় পেলেও) আমরা আজ ১০ রান কম করেছি।

ম্যাচ জয়ের কৃতিত্ব পেসারদের দিয়ে বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার বলেন, আমাদের পেসাররা যেভাবে বোলিং করেছে, তা ছিল অসাধারণ। আমরা এখন সব ফরম্যাটে ফাস্ট বোলিংয়ের গুরুত্ব বুঝি। গত কয়েক বছরে আমরা প্রতিভাময় পেসার খুঁজে পেয়েছি। নতুন এসেই হাসান দুর্দান্ত করছে। গত কয়েক বছর ধরেই তাসকিনের পারফর্ম্যান্সে ভালো উন্নতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

ম্যাচে দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়েরও প্রশংসা করেছেন টাইগার অধিনায়ক। এই বিষয়ে সাকিব বলেন, আমাদের দল তরুণ। তাই আমরা সেরা ফিল্ডিং দল হতে চাই। আমাদের বিশ্বাস আছে ভালো ফিল্ডিং করে ৫-১০ রান বাঁচাতে পারি। যা একটি বড় পার্থক্য করতে পারে।

প্রসঙ্গত, সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। আগামী ২৭ অক্টোবর সকাল ৯টায় সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হবে দুই দল।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.